বন্ধুর সঙ্গে প্রেমিকার বিয়ে, নদীর ধারে প্রেমিকের লাশ

editoreditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:13 AM, 26 July 2021

বগুড়া প্রতিনিধিঃ

বগুড়ার শেরপুরে গাড়ীদহ ইউনিয়নের বাংড়া এলাকায় করতোয়া নদীর ধার থেকে খলিলুর রহমান (২০) নামের এক রংমিস্ত্রির লাশ সোমবার সকাল ৮টায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত খলিলুর রহমান গাড়ীদহ মধ্যপাড়া মৃত আজাহার আলীর ছেলে। সে শেরপুর সরকারি ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচ এস সি অটো পাস করেছে। পাশাপাশি রংমিস্ত্রর কাজা করে। এলাকাবাসী ও চাচা সাইদুর রহমান জানান, গত ২দিন আগে বাড়ি থেকে বাহির হয়। সন্ধায় তার মা খুকিকে মোবাইলে কল দিয়ে কথা বলার এক পর্যায়ে রাগারাগি করে সংযোগ বিছিন্ন করে। পরে মা কল করলেও আর রিসিভ হয়নি। এরপর সকালে এলাকাবাসীর কাছথেকে খবর শুনে করতোয়া নদীর ধারে খলিলের লাশ পাওয়া গেছে। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। নাম প্রকামে অনিচ্ছুক একজন জানান, খলিলুর রহমানের সঙ্গে গাবতলী থানার দুর্গাহাটা এলাকার একটি মেয়ের সম্পর্ক ছিল। সেই মেয়ের সঙ্গে গত তিন দিন আগে কুড়ির ভিটা এলাকায় খলিলুর রহমানের বন্ধু সমিরের সঙ্গে বিয়ে হয়।

মা খুকি বেওয়া জানান, রাত্রিতে আমাকে কল দিয়ে জানায় আজ আমি মারা যাচ্ছি। তোমারা জেনে রাখ তোমার ছেলে দুইটা ছিল এখন থেকে একটা। আমি আর দুনিয়াতে থাকবোনা, আমি মারা যাবো সংযোগ বিছিন্ন করে দিলে এরপর থেকে আর কল রিসিভ হয়নি। এ বিষয়ে শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান, আমরা লাশ উদ্ধার করেছি। লাশের গায়ে কোন আঘাতের দাগ নেই। পাশেই মোবাইল পড়ে ছিল। ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসলে আসল কারণ জানা যাবে।

আপনার মতামত লিখুন :