ভাসুরের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে যৌন নীপিড়নের অভিযোগ

editoreditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:17 PM, 24 July 2021

সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি:

সোনাগাজী দক্ষিন পুর্ব চর ছান্দিয়ার পল্লী চিকিৎসক সুরেশ চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে এক গৃহবধুকে যৌন নীপিড়নের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। সুরেশ দাস ওই গ্রামের গোপাল আমিনের ছেলে ও পৌর শহরের মাহবুব চেয়ারম্যান বাড়ীর দরজায় বিশখা মেডিশপের মালিক।

শনিবার সকালে সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ জানান, সুরেশ চন্দ্র দাস তার মৃত দুই ভাইয়ের পৈত্রিক সম্পত্তি জবর দখল করে রেখেছে। অভিযোগ উঠেছে মৃত আপন দুই ছোট ভাইয়ের স্ত্রীদের বিভিন্ন সময় শারিরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয় সুরেশ।

তাদেরকে মধ্যরাতে নানা কুরুচিপূর্ণ বাক্য উচ্চারণ করে ডাকতে থাকেন। ওই গৃহবধূদের সামনে গোপনাঙ্গ প্রদর্শণ করে। অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ক্যামরায় ধারন করে সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন দুই গৃহবধু।

তারা আরো বলেন, সুরেশের অত্যাচার থেকে রেহাই পেতে তারা বিভিন্ন সময় স্বামীর ভিটে ছেড়ে বাবার বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন। এখনো তারা সুরেশের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

 

গত ২০ জুলাই এ ব্যাপারে সুরেশ চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে সোনাগাজী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতিত গৃহবধু। লম্পট সুরেশ চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিকবার ধর্ষনচেষ্টা ও শ্লীনতাহানীর অভিযোগ উঠেছিল।

তার অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে রেহাই পেতে নির্যাতিতরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

অভিযোগ অস্বীকার করে সুরেশ জানান, গোসল শেষে ঘরে ফেরার পথে লুঙ্গি সরে যাওয়ার সময় গোপনে ভিডিও- ধারন করে তাকে হেনস্তা করার পায়তারা হচ্ছে। এ ঘটনায় তিনিও থানায় পাল্টা অভিযোগ দিয়েছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই বেলায়েত হোসেন জানান, গৃহবধুর লিখিত অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে প্রত্যক্ষদর্শী এবং নির্যাতিত গৃহবধুদের সাথে কথা বলেছেন। দ্রুত আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তদন্ত কর্মকর্তা।

আপনার মতামত লিখুন :